1. zobairahmed461@gmail.com : Zobair : Zobair Ahammad
  2. adrienne.edmonds@banknews.online : adrienneedmonds :
  3. annette.farber@ukbanksnews.club : annettefarber :
  4. camelliaubq5zu@mail.com : arnider :
  5. patsymillington@hidebox.org : bennystenhouse :
  6. steeseejep2235@inbox.ru : bobbye34t0314102 :
  7. nikitakars7j@myrambler.ru : carljac :
  8. celina_marchant44@ukbanksnews.club : celinamarchant5 :
  9. sk.sehd.gn.l7@gmail.com : charitygrattan :
  10. clarencecremor@mvn.warboardplace.com : clarencef96 :
  11. chebotarenko.2022@mail.ru : dorastrode5 :
  12. lawanasummerall120@yahoo.com : eltonvonstieglit :
  13. tonsomotoconni401@yahoo.com : fmajeff171888 :
  14. gennieleija62@awer.blastzane.com : gennieleija6 :
  15. judileta@partcafe.com : gildastirling98 :
  16. katharinafaithfull9919@hidebox.org : isabellhollins :
  17. padsveva3337@bk.ru : janidqm31288238 :
  18. michaovdm8@mail.com : latmar :
  19. mahmudCBF@gmail.com : Mahmudul Hasan : Mahmudul Hasan
  20. marti_vaughan@banknews.live : martivaughan6 :
  21. crawkewanombtradven749@yahoo.com : marvinv379457 :
  22. deirexerivesubt571@yahoo.com : meridithlefebvre :
  23. lecatalitocktec961@yahoo.com : normanposey6 :
  24. guscervantes@hidebox.org : ophelia62h :
  25. margarite@i.shavers.skin : pilargouin7 :
  26. gracielafitzgibbon5270@hidebox.org : princelithgow52 :
  27. randi-blythe78@mobile-ru.info : randiblythe :
  28. berrygaffney@hidebox.org : rose25e8563833 :
  29. incolanona1190@mail.ru : sibyl83l32 :
  30. pennylcdgh@mail.com : siribret :
  31. ulkahsamewheel@beach-drontistmeda.sa.com : ulkahsamewheel :
  32. harmony@bestdrones.store : velmap38871998 :
  33. karleengjkla@mail.com : weibad :
  34. dhhbew0zt@esiix.com : wpuser_nugeaqouzxup :
বাম-সেকুলারদের মোল্লাতন্ত্রের বিরোধীতার উদ্দেশ্য ও আমাদের করণীয়
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১১:০০ অপরাহ্ন

বাম-সেকুলারদের মোল্লাতন্ত্রের বিরোধীতার উদ্দেশ্য ও আমাদের করণীয়

আহমদ মনির
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৮৯ বার পড়া হয়েছে
secularism-and-islam

বঙ্গীয় সেকুলার ও বামরা বরাবরই ‘মোল্লাতন্ত্রের’ বিরোধীতা করে থাকে। তাদের পক্ষ থেকে সংসদ থেকে সমাবেশ, মিডিয়া থেকে বই-পুস্তিকা সবখানেই দেখা যায় মোল্লাতন্ত্রের শক্ত বিরোধীতা। বঙ্গীয় সেকুলার সমাজের মোল্লাতন্ত্রের বিরোধীতা ও পশ্চিমা এনলাইটেন্মেন্টের চিন্তক নামক কুশিলবদের পাদ্রী বা যাজকতন্ত্রের বিরোধিতা একই সূত্রে গাঁথা। মোল্লাতন্ত্র বলার মধ্যে দিয়ে তারা একটি বিশেষ দৃষ্টিভঙ্গির প্রকাশ ঘটায়। এই বাম সেকুলাররা মনে করে ধর্ম কোন সৃষ্টিকর্তার পক্ষ থেকে আসেনি। ধর্ম হচ্ছে সমাজের সৃষ্টি ( অর্থাৎ মানুষের তৈরি ধারণা)। ধর্মের বিধান দেয় ধর্মযাজকরা তথা মোল্লারা, (স্রষ্টা নন)। তারা মনে করে স্রষ্টাই নেই বা স্রষ্টা প্রদত্ত ধর্মের নামে যা আছে তা সবই মোল্লাদের তৈরি, তাই তারা আদর করে ইসলামী অনুশাসনকে প্রকাশকরে ‘মোল্লাতন্ত্র’ নামে।

রাশেদ খান মেনন’রা যখন ইসলামের বিধানের বিরোধীতা করে, তা তারা জাতির সামনে মোল্লাতন্ত্রের বিরোধীতা হিসেবে হাজির করে। আপনার কাছে যেটা ইসলাম, সেটাই তাদের কাছে মোল্লাতন্ত্র। ধর্মের বিধানের বিরোধীতা মোল্লাতন্ত্রের বিরোধীতার মোড়কে হাজির করায়, অনেক সরলপ্রাণ মুসলিম তাদের ধর্মবিদ্বেষ ঠিক মতো ঠাহর করতে পারেন না। আর সেকু-বামরা এই বোধ বা টেকনিক শিখেছে তাদের দার্শনিক বা সমাজবিজ্ঞানী নামক পুরোহিতদের থেকে।

সমাজতাত্ত্বিক অগাস্ট ক্যোঁৎ সমাজের তিনটি স্তরের কথা বলেন, থিওলজিক্যাল, মেটাফিজিক্যাল এবং পজিটিভ বা সাইন্টিফিক। থিওলজিক্যাল স্তরে তিনি ধর্মের প্রভাবের কথা স্বীকার করলেও, ধর্মকে তিনি স্রষ্টা প্রদত্ত বলতে নারাজ।[১]

ধর্ম সম্পর্কে ডুরখেইমের অভিমত হল এই যে, “ধর্মের উৎপত্তি হয়েছে সামাজিকভাবে, অর্থাৎ, রিলিজিয়ন ইজ দ্যা প্রোডাক্ট অব সোসাইটি; সহজ কথায়, ধর্ম মানুষের বা সমাজের তৈরি, কোন দৈব বা ঐশ্বরিক হস্তক্ষেপের ফল নয়। মানুষ যে দেবতার কথা বলে, গডের কথা বলে, এই দেবতা বা গড আসলে সামাজিক দেবতা বা সোশ্যাল গড।” [২]

ধর্মের উৎপত্তির ক্ষেত্রে জার্মান সমাজবিজ্ঞানী ও অর্থনীতিবিদ কার্ল মার্ক্স এবং ম্যাক্স ভেবারের চিন্তাধারাও ডুরখেইমের অনুরুপ। মার্ক্স এবং ভেবারও মনে করেন ধর্মের উৎপত্তি সমাজে, যদিও সমাজে ধর্মের ভূমিকা নিয়ে তাঁরা পরস্পরবিরোধী মত প্রকাশ করেন।

অর্থাৎ, বঙ্গীয় সেকু-বামদের মোল্লাতন্ত্রের বিরোধীতাও তাদের নিজস্ব উদ্ভাবন নয়, যাস্ট বাইরের সমাজবিজ্ঞানীনামক পুরোহিতদের অন্ধ তাকলিদ।
এখন প্রশ্ন আশা স্বাভাবিক , মোল্লাতন্ত্রের ইস্যুতে আমাদের মুসলমানদের অবস্থান কী হবে? তারা যেহেতু মোল্লাতন্ত্রের বিরোধীতা করছে, তাই আমরা কী দাবি করবো, আমরা মোল্লাতন্ত্রের পক্ষে !
আমাদের সোজাসাপ্টা উত্তর হলো, অবশ্যই নয়। তারা যখন আল্লাহর কোন বিধানকে মোল্লাতন্ত্র বলে উড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে, তখন আমরা হীনমন্যতায় না ভুগে সেটা যে আল্লাহর বিধান তা জাতির সামনে উপস্থাপন করতে সচেষ্ট হবো এবং তাদের বিরোধীতা যে মোল্লাদের সাথে নয়, স্বয়ং আল্লাহ সুবহানাহু তা’আলার সাথে সেটাও স্পষ্টকরণ প্রয়োজন। ( পাগড়ি মাথায় ‘এদেশে মোল্লাতন্ত্র ছিলো, থাকবে’ গজল ধরলে লাভ হবে না , যদিও এই কাজ মুসলিম শিল্পীদের করতে দেখা যাচ্ছে)

আর পাশ্চাত্যে খ্রিস্টধর্মের যাজকেরা যে ধর্মের নামে অধর্ম প্রচার করতো এবং ইসলাম ছাড়া সকল ধর্ম যে, বিকৃত এবং ভুল, সমাজ ও মানবসভ্যতার জন্যে ক্ষতিকর। ধর্মের নামে পাদ্রীদের অধর্মপ্রচারের বিরোধীতা যে আল কোরআনেও করা হয়েছে তাও স্পষ্টকরণ প্রয়োজন। অন্য ধর্মের সাথে যাজকতন্ত্রের বা পুরোহিততন্ত্রের সম্পর্কের সত্যতা থাকলেও ইসলামে যে মোল্লাতন্ত্রের নূন্যতম ঠাঁই নেই তা ক্লিয়ার করাও জরুরি। কিন্তু অবস্থাদৃষ্টে মনে হয়, পশ্চিমা সমাজবিজ্ঞানীদের অন্ধ মুকাল্লিদ আমাদের বঙ্গীয় সেকু-বামরা ইসলাম ও অন্য ধর্মের পার্থক্যটা বোঝার চেষ্টা করবে না হয়তো। তারা যাই করুক তাদের ‘মোল্লাতন্ত্র’ নামক শব্দের আড়ালে ইসলামী শরিয়াহ’র বিরোধীতার বিরুদ্ধে আমাদের সোচ্চার হতে হবে।


[লেখাটিতে ‘ধর্ম ও রাজনীতি—ইসলাম প্রসঙ্গ’ প্রবন্ধের হেল্প নেয়া হয়েছে ।]

তথ্যসূত্র:
১) Anthony Giddens, Positivism and Sociology, Heinemann, New Hampshire, 1978.

২)Emile Durkheim, The Elementary Forms of the Religious Life, Dover Publications, New York, 2008 (originally published in 1912).

 

 


প্রিয় পাঠক, ‘দিন রাত্রি’তে লিখতে পারেন আপনিও! লেখা পাঠান এই লিংকে ক্লিক করে- ‘দিনরাত্রি’তে আপনিও লিখুন

লেখাটি শেয়ার করুন 

এই বিভাগের আরো লেখা

Useful Links

Thanks

দিন রাত্রি’তে বিজ্ঞাপন দিন

© All rights reserved 2020 By  DinRatri.net

Theme Customized BY LatestNews